শরীরচর্চার নতুন শিক্ষক

শনিবার, ১১ মে ২০১৯ | ৭:৪৬ অপরাহ্ণ | 347 বার

শরীরচর্চার নতুন শিক্ষক

শরীরচর্চা আর বলিউড এই দুই মিলিয়ে যদি কাউকে বেছে নিতে বলা হয়, সেটা নিঃস্বন্দেহে শিল্পা শেঠি। বিশ্বাস করুন আর না-ই করুন, এই বলিউড রূপসীর বয়স ৪৩! কিন্তু তাঁর শরীর এখনো আটকে আছে ১৮তেই। যেখানেই যান, সবাই তাঁর কাছে সবার আগে অভিনয়, নাচ বা মডেলিং নয়, শিখতে চান ‘ব্যায়াম’। এবার তাই সমস্যার সমাধানে শিল্পা শেঠি বের করলেন নিজের শরীরচর্চাবিষয়ক অ্যাপ। নাম ‘দ্য শিল্পা শেঠি’। এখন ব্যায়াম করার জন্য শিল্পাকে খুঁজতে হবে না। এই অ্যাপের ভেতরেই আপনি শিল্পা শেঠির কাছ থেকে শিখতে পারবেন শরীরচর্চা।

শিল্পা নিজের ফোনে ডাউনলোড করা অ্যাপ খুলে ওয়ার্ক আউটের পাশাপাশি ডায়েটের চ্যাপ্টারের ভিডিও দেখিয়ে বলেন, ‘আমি ফিটনেসের বিষয়ে খুব সচেতন। আমাদের প্রত্যেকের জীবনের উদ্দেশ্য আছে। আমি এই যাত্রায় সুস্থ ও ফিট থাকার জন্য অবদান রাখতে চাই। সেখান থেকে আমার দ্য শিল্পা শেঠি অ্যাপ।’

শিল্পা শেঠিকে দেখা যায় বড় পর্দায় আর টেলিভিশনে। তাঁকে আরও দেখা যায় জিমনেসিয়াম আর সুপারশপে। কিন্তু এসব স্থান ছাড়াও এই তারকাকে দেখা যায় শরীরচর্চা আর যোগ ব্যয়ামের মাঠে। ২১ জুন বিশ্ব যোগ দিবসে সব বয়সের, সব শ্রেণির হাজার হাজার মানুষকে জড়ো করে যোগ ব্যয়ামের দীক্ষা দিতে দেখা যায় তাঁকে।

ওই সময় তিনি আরও বলেন, ‘আমার এই অ্যাপ সেই সব মানুষের জন্য, যাঁরা মনে করেন সুস্থ, সুন্দর শরীর একটা অর্জনের বিষয়। আর সে ক্ষেত্রে জয়ী হওয়ার পথ খুবই কঠিন। কিন্তু এটা কোনো রকেট সায়েন্স নয়। জীবনযাপনে ছোট্ট ছোট্ট কিছু পরিবর্তন আনতে পারলেই সেটা সম্ভব। ওজন কমানোর জন্য ও ফিট থাকার জন্য শুধু এই ছোট্ট এবং সাধারণ বিষয়গুলো নিয়মিত শৃঙ্খলার সঙ্গে মেনে চললেই হয়। তবে অবশ্যই আপনার সেই সদিচ্ছা থাকতে হবে।’

শুধু শরীরচর্চাই নয়, যেকোনো কাজে সফলতার মূলমন্ত্রও শিখিয়ে দিলেন শিল্পা শেঠি। আর তা হলো একটা শব্দ, ‘শৃঙ্খলা’।

শিল্পা শেঠি অর্গানিক খাবার খান। তিনি বিশ্বাস করেন, এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। এই ‘ফিট’ অভিনেত্রীর মতে, অর্গানিক খাবার খাওয়া কোনো লোক দেখানো ফ্যাশন নয়। এটা অনেকটা নিজের শিকড়ের কাছে ফিরে যাওয়ার মতো। এই যুগের আধুনিক মনস্ক মানুষ হলে কী হবে, শিল্পা শেঠি বিশ্বাস করেন ৭০ থেকে ১৫০ বছর আগে মানুষ যা খেয়েছে, আমাদের নাকি সেখানেই ফিরে যাওয়া উচিত! এ সময় তিনি স্মৃতির টাইম মেশিনে অতীতে ফিরে গিয়ে দাদির রান্না স্মরণ করেন।

একজন গৃহিণী এবং একজন মা হওয়া সত্ত্বেও প্রতিদিন বাজার করেন শিল্পা শেঠি। তিনি বলেন, ‘আমার কাছে সবার ওপরে আমার পরিবারের স্বাস্থ্য। প্যাকেটের মোড়কে কী আছে, সব সময় পুরোটা পড়ি। তারপর কিনি।’

কোনো প্যাকেটজাত গুঁড়ামসলা ব্যবহার করেন না শিল্পা শেঠি। সেই কাজটা তিনি নিজেই করেন। যদিও শিল্পা শেঠি বাইরের কোনো বিস্কুট বা প্যাকেটজাত খাবার খান না। তবে জিরার বিস্কুট পেলে বাচ্চাদের মতোই খুশি হয়ে যান এই তারকা।

ভারতীয় গাছগাছড়া, সবুজ সবজি ভীষণ পছন্দ এই অভিনেত্রীর। ‘দ্য গ্রেট ইন্ডিয়ান ডায়েট’ নামে একটা বইও লিখেছেন তিনি।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2020

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!