এইমাত্র পাওয়া

x

ইয়াবা উদ্ধার

শরণার্থী ত্রাণ প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) অফিসের স্টিকারযুক্ত গাড়ী থেকে প্রায় কোটি টাকা মূল্যের ইয়াবা উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১৫

বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০১৯ | ১০:৫০ পূর্বাহ্ণ | 202 বার

শরণার্থী ত্রাণ প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) অফিসের স্টিকারযুক্ত গাড়ী থেকে প্রায় কোটি টাকা মূল্যের  ইয়াবা উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১৫

শরণার্থী ত্রাণ প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) অফিসের স্টিকারযুক্ত গাড়ী থেকে প্রায় কোটি টাকা মূল্যের ১৯,৩১০ টি ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১৫।
১৬ এপ্রিল বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ রাস্তার হিমছড়ি সেনা চেকপোষ্ট এলাকা থেকে এসব ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তবে, জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি অভিযানকারীরা। গাড়ির চালককে চিহ্নিত করা হয়েছে।
র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পুলিশ সুপার (সহকারী পরিচালক-মিডিয়া) মোঃ শাহ আলম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কক্সবাজার জেলার রামু থানাধীন কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ রাস্তা দিয়ে টেকনাফ হতে কক্সবাজারগামী একটি নাম্বার বিহীন হাইলাক্স নিশান পিকআপ গাড়ী যোগে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী মাদক দ্রব্য (ইয়াবা) ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে আসতেছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে ১৬ এপ্রিল বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে চৌকশ আভিযানিক দল কক্সবাজার টু টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ রাস্তার হিমছড়ি সেনা চেকপোষ্ট সংলগ্ন স্থানে একটি বিশেষ চেকপোষ্ট স্থাপন করে গাড়ী তল্লাশী শুরু করে। গাড়ী তল্লাশীর এক পর্যায়ে একটি হাইলাক্স নিশান পিকআপ যার সামনে ইংরেজিতে ‘আরআরআরসি’ ষ্টীকার যুক্ত আসতে দেখে গাড়ীর চালককে থামানোর সংকেত দেয়া হয়।
চালক গাড়ীটি না থামিয়ে প্রায় ১ কিলোমিটার সামনে এগিয়ে গিয়ে গাড়িটি রেখে চালক পালিয়ে যায়। পরে গাড়ীটি তল্লাশী করে গাড়ীর পিছনের সিটের নিচে থাকা অবস্থায় ১৯,৩১০ টি ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। উদ্ধাকৃত ইয়াবার মূল্য ৯৬ লাখ ৫৫ হাজার টাকা।
র‌্যাব জানিয়েছে, তারা অনুসন্ধান করে জানতে পেরেছে, গাড়িটির চালকের নাম জাহাঙ্গীর আলম (৩৪)। তিনি বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি কলম্বিয়া এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পুলিশ সুপার, সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মোঃ শাহ আলম। এ বিষয়ে জানতে কক্সবাজার শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ আবুল কালাম এর মুঠোফোনে (০১৮৪৭…৭৮২)-তে বুধবার সকাল ০৯.৫০টায় কল করলে রিসিভ করেননি। এরপর অতিরিক্ত শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ সামছু দ্দৌজার কাছে বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি প্রতিবেদককে ঘটনার বিষয়ে বিস্তারিত জানতে অফিসে আমন্ত্রণ করেন। অবশ্য, এর আগে একই অফিসের অরেক কর্মকর্তাকে ফোন করলে তিনি ঘটনাটি সত্য বলে স্বীকার করেছেন।

আবরারের মৃত্যু আমাদের অনেক কিছু শিখিয়ে দিয়ে গেল – ইশতিয়াক আহমেদ
দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2019

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!