লামায় প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত, ৫৬ জনের নমুনা সংগ্রহ

বুধবার, ২২ এপ্রিল ২০২০ | ৬:২৭ অপরাহ্ণ | 47 বার

লামায় প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত, ৫৬ জনের নমুনা সংগ্রহ

বান্দরবানের লামা উপজেলায় প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) রাত ১১টায় রাশেদা বেগম (৪০) নামে এই মহিলার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজেটিভ বলে নিশ্চিত করে লামা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদুল হক বলেন, গত ১৬ এপ্রিল বৃহস্পতিবার ওই নারী ও তার স্বামীর নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। সে লামা উপজেলায় প্রথম করোনা রোগে আক্রান্ত ব্যক্তি।

তিনি আরো বলেন, আক্রান্ত ওই মহিলার শরীরে করোনা ভাইরাসের কোন লক্ষণ এখনো দেখা যায়নি। সে এখনো সুস্থ আছে। আগামী ৭দিন পরে আবারো তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। এছাড়া ওই বাড়ির আশপাশের সবার নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়িটি আইসোলেশন সেন্টার ঘোষণা দিয়ে তাকে ওখানে রাখা হয়েছে। পরবর্তীতে তার শরীরের অবস্থা অবনতি হলে তাকে চিকিৎসার জন্য চমেক হাসপাতালে আইসোলেশন সেন্টারে পাঠানো হবে।

লামা সদর ইউপি চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন জানান, গত ৫ দিন আগে রাশেদা বেগম ও তার স্বামীর করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে তার রিপোর্ট পজেটিভ আসে। নমুনা সংগ্রহের পর থেকে ওই পরিবারটিকে হোম কোয়ারেন্টাইন করা হয়। বুধবার ওই বাড়ির সকল সদস্যে ও আশপাশের সন্দেহভাজন লোকজনের নমুনা সংগ্রহ করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা।

করোনা আক্রান্ত মহিলার স্বামী বলেন, তিনি চট্টগ্রামের পটিয়া এলাকায় গাছ কাটার কাজ করতেন। গত ১৪ দিন আগে সে লামায় নিজ বাড়িতে আসে। গত ৫ দিন আগে সে ও তার স্ত্রীর করোনার নমুনা নেয়া হয়।

খবর পাওয়া মাত্র রাতেই করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রাশেদা বেগম এর বাড়িতে ছুঁটে যান লামা উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদুল হক, লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, সদর ইউপি চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন। এদিকে বুধবার সকালের করোনা আক্রান্ত ওই মহিলার বাড়িতে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রী নিয়ে হাজির হন লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি ও লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি সবাইকে নিজ নিজ বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে থাকার অনুরোধ করেছেন। তিনি বলেন, মেরাখোলা মুসলিম পাড়া ও আশপাশের এলাকাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, লামা হাসপাতাল সূত্রে জানা যায় গত ২৪ মার্চ ২০২০ইং লামা উপজেলা লকডাউন ঘোষণার পর থেকে ২২ এপ্রিল ২০২০ইং বুধবার পর্যন্ত ৫৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩২ জনের রিপোর্ট এসেছে। তারমধ্যে ১ জনের করোনা পজেটিভ বাকীরা নেগেটিভ। বাকী ২৪ জনের রিপোর্ট কয়েকদিনের মধ্যে আসতে পারে। আজ বুধবার করোনা পজেটিভ মেরাখোলা মুসলিম পাড়া এলাকায় ১১ জনের করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2020

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!