মালয়েশিয়া ফেরত ৪ শতাধিক রোহিঙ্গা ইউএনএইচসিআর এর অধিনে

বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২০ | ২:৪৯ অপরাহ্ণ | 173 বার

মালয়েশিয়া ফেরত ৪ শতাধিক রোহিঙ্গা ইউএনএইচসিআর এর অধিনে

টেকনাফের সমুদ্র উপকূলীয় এলাকা থেকে ‘মালয়েশিয়া ফেরত’ ৪ শতাধিকে রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড। বুধবার রাত ১০ টার দিকে টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের সমুদ্র উপকূলীয় এলাকা শামলাপুরের জাহাজ ঘাট থেকে এসব রোহিঙ্গগাদের উদ্ধার হয় বলে জানান কোস্টগার্ডের টোকনাফ স্টেশনের ইনচার্জ লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এম সোহেল রানা।

নানা প্রক্রিয়া শেষে বৃহস্পতিবার বেলা আড়াই টার দিকে এসব রোহিঙ্গাদের ইউএনএইচসিআর কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

কোস্টগার্ডের টোকনাফ স্টেশনের ইনচার্জ লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এম সোহেল রানা জানিয়েছেন, ” উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গারা সবাই একটি জাহাজে করে কিছুদিন আগে সাগরপথে মালয়েশিয়া যাত্রা করেছিল। কিন্তু পরে দেশটিতে ভিড়তে না পারায় বাংলাদেশে ফিরে আসতে বাধ্য হয়েছে। ”

উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গারা উখিয়া ও টেকনাফের বিভিন্ন ক্যাম্পের বাসিন্দা। এদের অধিকাংশই নারী ও শিশু।

সোহেল রানা বলেন, বুধবার রাতে টেকনাফের শামলাপুর জাহাজ ঘাট সমুদ্র উপকূলীয় এলাকায় রোহিঙ্গা বোঝাই একটি ট্রলার অবস্থান করছে বলে স্থানীয়রা কোস্টগার্ডকে খবর দেয়। পরে কোস্টগার্ডের একটি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে অন্তত ৩ শতাধিক রোহিঙ্গাকে উদ্ধারসহ একটি ট্রলার জব্দ করা হয়।

” উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গারা সবাই ট্রলার থেকে উপকূলে নেমে আসছিল। তারা মালয়েশিয়ায় ভিড়তে না পারায় বাংলাদেশে ফিরে আসতে বাধ্য হয়েছে। এদের অধিকাংশই নারী ও শিশু। ”

উদ্ধার হওয়াদের বরাত দিয়ে কোস্টগার্ডের এ কর্মকর্তা বলেন, ” গত কিছুদিন আগে উখিয়া ও টেকনাফের বিভিন্ন ক্যাম্পের বাসিন্দা এসব রোহিঙ্গারা ট্রলার যোগে সাগরপথে মালয়েশিয়ার উদ্দ্যেশে রওনা হয়েছিল। কিন্তু নানাভাবে চেষ্টার পরও তারা মালয়েশিয়া ভিড়তে পারেনি। ”

উদ্ধার হওয়া টেকনাফের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা মোহাম্মদ জোবাইর বলেন, গত মাসখানেকের বেশি আগে ৪ শতাধিক জন রোহিঙ্গা বোঝাই একটি ট্রলার সাগরপথে মালয়েশিয়ার উদ্দ্যেশে রওনা দেয়। সেখানে পৌঁছলেও দেশটিতে কড়াকড়ির কারণে ভিড়তে পারেনি।

” এতদিন সাগরে ভাসমান অবস্থায় ছিলাম। অনেক চেষ্টার পরও ট্রলারটি মালয়েশিয়ার উপকূলে ভিড়তে পারেনি। দীর্ঘদিন সাগরে অবস্থানের সময় অন্তত ২০ থেকে ২৫ জন মারা গেছে। পরে ট্রলারটি বাংলাদেশে ফেরত আসতে বাধ্য হয়েছে। ” বলেন উদ্ধার হওয়া এ রোহিঙ্গা।

বুধবার রাত থেকে নানা প্রক্রিয়া শেষে উদ্ধার হওয়া এসব রোহিঙ্গাদের ইউএনএইচসিআর কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কোস্টগার্ড।

তবে এব্যাপারে ইউএনএইচসিআর কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2020

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!