বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ‘তিন রোহিঙ্গা’ মাদকপাচারকারি নিহত

বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই ২০২০ | ১০:৫২ পূর্বাহ্ণ | 53 বার

বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ‘তিন রোহিঙ্গা’ মাদকপাচারকারি নিহত
উখিয়া সীমান্তে বিজিবির সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে তিন রোহিঙ্গা মাদক পাচারকারি নিহত এবং বিজিবির দুই সদস্য আহত হয়েছে; এসময় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ অস্ত্র ও গুলি।
বৃহস্পতিবার ভোরে উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের তুলাতলী জলিলের গোদা ব্রিজ এলাকায় এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে বলে জানান বিজিবির কক্সবাজার ৩৪ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ।
নিহতরা হল, বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার তমব্রু কোনার পাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা মৃত জুলুর মল্লুকের ছেলে নুর আলম (৪৫), উখিয়ার বালুখালী ১ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জি-২৯ ব্লকের মো. গুরা মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ হামিদ (২৫) এবং কুতুপালং ২ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি-৪ ব্লকের মো. ছৈয়দ হোসেনের ছেলে নাজির হোসেন (২৫)।
বিজিবি জানিয়েছে, নিহতরা ৩ জনই মাদক পাচারকারি এবং বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা।
লে. কর্ণেল আলী হায়দার বলেন, বৃহস্পতিবার ভোরে মিয়ানমার থেকে ইয়াবার বড় একটি চালান বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে খবরের ভিত্তিতে বিজিবির ১০ সদস্যের একটি দল সীমান্ত সংলগ্ন উখিয়ার রাজাপালং ইউনিয়নের তুলাতলী জলিলের গোদা ব্রিজ এলাকায় অবস্থান নেয়। এক পর্যায়ে মিয়ানমার দিক থেকে ৮/১০ জনের একদল লোক পাহাড়ী এলাকা দিয়ে আসতে দেখে বিজিবির সদস্যরা থামার জন্য নির্দেশ দেয়। এসময় বিজিবির সদস্যদের লক্ষ্য করে লোকগুলো এলোপাতাড়ী গুলি ছুড়তে শুরু করে। বিজিবির সদস্যরাও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুড়ে।
” এক পর্যায়ে ইয়াবা পাচারকারিরা পাহাড়ী এলাকা দিয়ে পালিয়ে গেলে গোলাগুলি থামার পর ঘটনাস্থলে ৩ জনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। ঘটনায় ২ বিজিবির সদস্যও আহত হয়েছে। ঘটনাস্থলের আশপাশে তল্লাশী করে পাওয়া যায় ৩ লাখ ইয়াবা, ২ টি দেশিয় তৈরী লম্বা বন্দুক ও ৫ টি গুলি। “
বিজিবির অধিনায়ক বলেন, ” আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক গুলিবিদ্ধ ২ জনকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে সেখানে আনা হলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। “
আলী হায়দার জানান, নিহতদের গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে আনার পথে জিজ্ঞাসাবাদে তাদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। তারা দীর্ঘদিন ধরে সীমান্তে ইয়াবাপাচারের সাথে জড়িত রয়েছে।
নিহতদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানান বিজিবির এ অধিনায়ক।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2020

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!