বইল্যাপাড়ায় হচ্ছে নতুন কলেজ

বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল ২০১৯ | ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ | 442 বার

বইল্যাপাড়ায় হচ্ছে নতুন কলেজ

কক্সবাজার শহরে নতুন আরেকটি কলেজ করতে যাচ্ছে জেলা প্রশাসন। শহরের বইল্যাপাড়া এলাকায় পুরাতন ্িসএন্ডবি কলোনীতে হচ্ছে এই নতুন কলেজ। আগামী ২০ এপ্রিল এই নতুন কলেজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করবেন মন্ত্রী পরিষদ সচিব শফিউল আলম। বুধবার সকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে এ বিষয়ে এক মত বিনিময় সভা অনুষ্টিত হয়েছে এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন। এতে জেলা প্রশাসক বলেন, পর্যটন নগরী হলেও কক্সবাজার জেলা শিক্ষায় কিছুটা পিছিয়ে তাই সময় থাকতেই শিক্ষার পেছনে কিছু কাজ করতে চাই। তারই প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে একটি উচ্চ মাধ্যমিক স্তুরের শিক্ষা প্রতিষ্টান বা কলেজ করতে চাইছি। পরে শহরের মধ্যে জায়গা খুঁজতে গিয়ে সবার মতামতের ভিত্তিতে উঠে এসেছে শহরের বইল্যাপাড়া এলাকায় পুরাতন গণপূর্ত অফিসের আবাসিক এলাকা। যাকে অনেকে সিএন্ডবি কলোনী হিসাবে চিনে। সেখানে থাকা স্থাপনা গুলোকে অনেক আগেই পরিত্যক্ত ঘোষনা করা হয়েছে। একই সাথে সেই জমি সরকারি খাস (এক)এর খতিয়ান ভুক্ত। তিনি বলেন, আমি যেহেতু সরকারি চাকরী করি অবশ্যই এক সময় কক্সবাজার থেকে চলে যাব কিন্তু যতদিন আছি জেলাবাসীর জন্য কিছু করে যেতে চাই, আর এমন কাজ করতে চাই যা কোন ব্যক্তি বা গোষ্টীর জন্য নয় যাতে সবার উপকারে লাগে। আপনারা ইতি মধ্যে দেখেছেন শহরের সার্কিট হাউজ সংলগ্ন সরকারি জমিতে সুবিধা বঞ্চিত শিশু,বৃদ্ধ বা সমাজের অবহেলিত মানুষের জন্য স্কুল সহ সব কিছুর জন্য একটি স্থাপনা ইতি মধ্যে দাড়িয়ে গেছে। খুব অল্প সময়ে সেই কার্যক্রম দৃশ্যমান হবে বলে জানান তিনি। এবং এসব কাজে জেলাবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন জেলা প্রশাসক।
এব্যাপারে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শাহজাহান আলী বলেন,আমি অল্প কিছু দিন হলো কক্সবাজারে যোগদান করেছি,যখন থেকে এসেছি আমি জেলা প্রশাসক মহোদয়কে দেখেছি সব সময় জেলার মানুষের জন্য কিছু একটা করার চিন্তা উনার ভেতরে সব সময় কাজ করে। তিনি যে কোন সুযোগ সুবিধা আসলেই সেখানে কক্সবাজারের মানুষের জন্য কি সুবিধা আছে সেটা আগে জানতে চান। সম্প্রতি একটি কলেজ করার পরিকল্পনা জেলা প্রশাসক মহোদয় নিয়েছেন। সে জন্য শহরের কাছেই বইল্যা পাড়া নামক স্থানে একটি সুন্দর জায়গা পাওয়া গেছে সেখানেই সম্পূর্ন জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এই কলেজ প্রতিষ্টা হবে। আশা করা হচ্ছে আগামী ২০ এপ্রিল মাননীয় মন্ত্রী পরিষদ সচিব শফিউল আলম এর ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করবেন। তিনি জানান প্রাথমিক পর্যায়ে এইচ এস সি দিয়েই যাত্রা শুরু হবে এই কলেজের পরবর্তীতে সব ধরনের উচ্চ শিক্ষা এই কলেজে পাওয়া যাবে।
এ ব্যাপারে কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের চৌধুরী বলেন,সবাইকে দিয়ে সব কাজ হয়না,অনেকে বড় বড় ক্ষমতায় থেকে সাধারণ মানুষের জন্য দৃশ্যমান স্থায়ী কিছুই করতে পারেননা। কিন্তু বর্তমান জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন ইতি মধ্যে কয়েকটি দৃশ্যমান এবং স্থায়ী কাজ করেছেন। এবং নতুন একটি কলেজ করার উদ্যোগ নিয়েছেন এটা সত্যি প্রশংসার দাবীদার।
পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন,আমি যখন চিঠির মাধ্যমে জানতে পারলাম একটি নতুন কলেজ করার জন্য সভা হবে। তখনি আমি আনন্দে আত্বহারা হয়ে গেছি। আমি সভায় যোগদান করার আগে চিন্তা করেছিলাম নতুন কলেজটি শহরের ভেতরেই করার প্রস্তাব দেব। কিন্তু সভায় গিয়ে দেখি জেলা প্রশাসক সাহেব আগে থেকেই জমি এবং স্থান ঠিক করে রেখেছেন। আমি মনে করি বর্তমান জেলা প্রশাসক কক্সবাজারের মানুষের মনে স্বরনীয় হয়ে থাকবেন। এবং তিনি যে উদ্যোগ নিয়েছেন সেটা চমৎকার সিদ্ধান্ত।
এদিকে গতকাল বিকাল সেই সিএনবি কলোনীতে গিয়ে দেখা গেছে সেখানে এলাকার কিছু কিশোর খেলাধুলা করছে,সেখানে আলাপ কালে স্থানীয় বেলাল, আলী আহাম্মদ সহ কয়েকজন মুরব্বী বলেন, আমরা শুনেছি জেলা প্রশাসন এখানে একটি কলেজ করার পরিকল্পনা করছেন এতে আমরা খুবই খুশি। কারন এই এলাকায় একটি কলেজ হলে পুরু বইল্যা পাড়া সহ বৃহত্তর ঘোনার পাড়া,পাহাড়তলী আলোকিত হয়ে যাবে। এখানকার ছেলে মেয়েরা সহজে লেখা পড়া করতে পারবে। এছাড়া বর্তমানে এই স্থানে মাদকসেবীদের আস্থানা হয়ে আছে সেটার কারনে এখানে প্রতি নিয়ত ছিনতাই, মাদকের আড্ডা সহ নানান অপরাধ হয় সেই অরাজক পরিস্থিতি থেকেও আমরা নিস্তার পাব। সে জন্য জেলা প্রশাসনের এই উদ্যোগ কে আমরা এলাকাবাসী স্বাগত জানাই।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2020

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!