পেসারদের মানসিকভাবে শক্ত হতে বললেন মাশরাফি

মঙ্গলবার, ৩০ এপ্রিল ২০১৯ | ১:৪৮ অপরাহ্ণ | 254 বার

পেসারদের মানসিকভাবে শক্ত হতে বললেন মাশরাফি

পেস বোলার আর চোট যেন মুদ্রার এপিঠ আর ওপিঠ। ক্রিকেটে পেস বোলারদের চোটে পড়ার শঙ্কা থাকে সবচেয়ে বেশি। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ দলে থাকা পাঁচ পেসারের তিনজনই যেমন কিছুটা চোট সমস্যায় ভুগছেন। তবে ছোটখাটো চোটকে পাত্তা না দিয়ে পেসারদের মানসিকভাবে শক্ত হওয়ার পরামর্শ দিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

বিশ্বকাপ দলে থাকা রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন শতভাগ ফিট নন। মাশরাফি মনে করিয়ে দিলেন পেসারদের চোট বাস্তবতা। পাশাপাশি তিনি উদাহরণ দিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি পেসার ও বর্তমানে নিজেদের বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশের।

‘পেস বোলাররা কখনো পুরোপুরি সুস্থ থাকে না। ছোটখাটো চোট নিয়েই খেলতে হয়। আমাদের ড্রেসিং রুমে একজন কিংবদন্তি আছে, কোর্টনি ওয়ালশ। তার সঙ্গে কথা বলেও অনেক জেনেছি যে, সেও সকালে উঠে অনেক ব্যথা অনুভব করত, কিন্তু তারপর ম্যাচ খেলত। এটা অভ্যাসের ব্যাপার। আমাদের পেস বোলার আমিসহ যার আছি, আমাদের একেবারে সিরিয়াস কিছু না হলে শতভাগ দিতে হবে, সেই মানসিকতা নিয়ে যেতে হবে। যেহেতু ওখানে কাজটা আরো কঠিন। কাজেই ছোটখাট চোট বাইরে রেখেই খেলতে হবে’- সোমবার সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন মাশরাফি।

পেসারদের চোট বিবেচনায় আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে বাড়তি পেসার হিসেবে তাসকিন আহমেদ ও ফরহাদ রেজাকে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তাদের দলে নেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করলেন মাশরাফি, ‘কোচ মনে করেছেন অতিরিক্ত কিছু পেসার সঙ্গে রাখা। যদি আল্লাহ না করুক কোনো সমস্যা হয়। তারা এখানে কী কী অনুশীলন করবে এসব চিন্তা করে নেওয়া হয়েছে, কারণ কারো কোনো সমস্যা হলে যেন ব্যাকআপ তৈরিই থাকে। আয়ারল্যান্ডে গিয়েও তো পাঁচটা ম্যাচ খেলতে হবে যদি ফাইনালে উঠি। পাঁচটা ম্যাচ খেলতে গেলে যেকোনো অঘটন ঘটতে পারে। আমাদের নিশ্চিত করতে হবে একজন ব্যাকআপে আছে আর ওই কন্ডিশনে গিয়ে তৈরি আছে।’

২০১৭ সালে ইংল্যান্ডে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে খেলেছিল বাংলাদেশ। তবে টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের পেসাররা ভালো করতে পারেননি। সর্বোচ্চ ৩ উইকেট ছিল একজন স্পিনারের! বিশ্বকাপে ভালো করতে হলে পুরো পেস ইউনিটকে জ্বলে উঠতে হবে বলে মনে করেন মাশরাফি, ‘আমরা চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে বোলাররা ভালো করিনি বলে আমরা দলগত পরফরম্যান্স সেভাবে ভালো করতে পারিনি। অবশ্যই আমরা নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জিতেছিলাম, কিন্তু আমরা চার ম্যাচে পেস বোলিং ভালো করিনি ইংল্যান্ডে। ওটা আমাদের মাথায় আছে। আমরা পেস বোলিং ইউনিট সম্মিলিতভাবে কতটা ভালো করতে পারি। নির্দিষ্ট করে একজনকে না বলে পুরো পেস ইউনিটকে ভালো করতে হবে।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2020

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!