নতুন পুরনো মিলেই চাকরির মেলার তালিকা তৈরী!

শনিবার, ১৩ জুলাই ২০১৯ | ৫:০৩ অপরাহ্ণ | 181 বার

নতুন পুরনো মিলেই চাকরির মেলার তালিকা তৈরী!

কক্সবাজার জেলা প্রশাসন আয়োজিত উখিয়ার চাকরি মেলার তালিকা নিয়ে বিভ্রান্তির শেষ নেই। সাধারণ মানুষের চোখকে ফাঁকি দিতে পুরনো চাকরিজীবিদের নতুন তালিকায় অন্তর্ভক্ত দেখিয়ে তালিকা প্রকাশ করেছে। তালিকায় পুরনো চাকরিজীবি যেমন রয়েছে আবার জেলার বাইরের লোকদেরকে ওই তালিকায় অন্তভর্‚ক্ত করে চাকরি মেলাকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে।

সম্প্রতি উখিয়ায় অনুষ্ঠিত চাকুরি এবং দক্ষতা উন্নয়ন মেলায় চূড়ান্ত ভাবে ২৮৬ জন নিয়োগের একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। ওই তালিকায় প্রথমে স্থান পেয়েছে বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের বাসিন্দা ও উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান হাজি নুরুল আবছারের ছেলে শাহ নিয়াজ চৌধুরীর নাম। তিনি গত দুই বছর ধরে এনজিও সংস্থা পাল্স-এ চাকরি করে আসছে। এছাড়াও তিনি বান্দরবান জেলার বাসিন্দা। চাকুরি মেলায় স্থানীয়দের অগ্রাধিকার থাকার কথা থাকলেও নামে-বেনামে তালিকা তৈরী করে দায়সারা গোচের অনুষ্ঠান শেষ করেছে।

উখিয়ায় অনুষ্ঠিত হওয়া চাকুরি এবং দক্ষতা উন্নয়ন মেলায় চূড়ান্ত ভাবে নিয়োগ পেয়েছেন স্থানীয় ২৮৬ জন নারী-পুরুষ। বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে এক অনুষ্ঠানে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন তাদের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেন। মোট ২১টি এনজিও আট উপজেলায় ওই ২৮৬ জনকে নিয়োগ দেন।
এসময় কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, কোন অভিজ্ঞতা না দেখে স্থানীয় ২৮৬ জন নারী-পুরুষকে চাকরি দিয়েছে এনজিওগুলো। নিয়োগ পেয়ে স্ব স্ব কর্মস্থলে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। করতে হবে ভাল পারফরম্যান্স। কারণ এটা দক্ষতা অর্জনের সুযোগ। বিশেষ করে ইংরেজীতে নিজেকে ফিট করতে হবে। দক্ষতা বাড়লে প্রকল্প শেষ হলেও পুনরায় নিয়োগ মিলবে। তাছাড়া অভিজ্ঞরা অনেকদূর এগিয়ে যাবে। জেলা প্রশাসক বলেন, বর্তমানে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ১০০ টাকার উন্নয়ন কর্মকান্ডে ২৫ টাকা স্থানীয়দের জন্য বরাদ্দ থাকার প্রস্তাবনা দেয়া হয়েছে।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2019

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!