টেকনাফে শিল্প মেলায় অবৈধ লটারি

বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯ | ১২:৫৫ অপরাহ্ণ | 289 বার

টেকনাফে শিল্প মেলায় অবৈধ লটারি
অবৈধ লটারি বন্ধে স্মারক লিপি দেয়া হয়েছে

টেকনাফ পৌর বাস টার্মিনালে পরিচালিত শিল্প ও বাণিজ্য মেলায় অবৈধভাবে পরিচালিত হচ্ছে লটারি নামের প্রকাশ্যে জুয়ার আসর। ২০ টাকায় মোটর সাইকেল সহ বিভিন্ন চটকদার পন্য দেওয়ার ঘোষনা দিয়ে চলছে তা। সকাল হতে রাত পর্যন্ত বিরামহীন ভাবে বেশ কটি ব্যাটারি চালিত অটো রিক্সা মাইকিং করে বিক্রি হচ্ছে এসব লটারি।

অথচ প্রশাসনের কোন প্রকার অনুমতি নেই এ লটারি পরিচালনা। টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, টেকনাফ থানার ওসি এ লটারি অনুমতির ব্যাপারে জ্ঞাত নন বলে জানালেও ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক বলেছেন, কেবল মেলা করতে অনুমতি দেয়া হয়েছে। ওখানে লটারি পরিচালনা অবৈধ। এদিকে, লটারি নামের জুয়ার আসর বন্ধ করতে স্মারকলিপি প্রদান সহ নানা কর্মসূচি ঘোষণা করেঠেছ ইমাম-মুসল্লীরা।

টেকনাফের একাধিক বাসিন্দা জানান, পবিত্র শবে বরাতের আগের দিন থেকে টেকনাফে মাইকিং করে বিক্রি শুরু করা হয় লটারির। র‌্যাফেল ড্রর নামে প্রতারণার ফাঁদ অব্যাহত থাকায় ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেছেন অনেকেই।

সূত্র জানিয়েছে, প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকায় র‌্যাফেল ড্রয়ের কুপন বিক্রি চলছে। “মায়ের দোয়া” নামের একটি প্রতিষ্ঠান পুরো উপজেলায় ইজিবাইক নিয়ে মাইকিং করে বিশ টাকা মূল্যের হাজার হাজার কুপন বিক্রি করছেন।

মোটর বাইক, ইজি বাইক, গরু, ফ্রিজ, স্বর্ণসহ বিভিন্ন ধরণের লোভনীয় পুরস্কার এবং প্রতিদিন ড্র দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে এসব কুপন বিক্রি করছেন বলে লোকজন জানিয়েছেন। গ্রামে গঞ্জের সাধারণ মানুষ এবং উঠতি বয়সের ছেলে-মেয়েসহ পড়ুয়ারাও পুরস্কার লাভের আশায় একেক জনে একাধিক কুপন ক্রয় করছেন। অনেকে লোভে পড়ে প্রতিদিন কুপন ক্রয় করে প্রতারিতও হচ্ছেন। গত ৫ এপ্রিল টেকনাফ বাস টার্মিনালে আনুষ্ঠিকভাবে এই মেলার উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনের পর সপ্তাহ পর্যন্ত কোন ধরণের র‌্যাফেল ড্র বিক্রি করেননি আয়োজক কর্তৃপক্ষ। গত সপ্তাহ থেকে হঠাৎ ইজিবাইক দিয়ে পুরো উপজেলা জুড়ে সকাল-সন্ধ্যা র‌্যাফেল ড্র বিক্রি করা হচ্ছে। আয়োজকরা লোকসানে, তাই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে লাকী কুপন বিক্রির মত প্রতারণার ফাঁদ বসিয়েছেন বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মেলা সংশ্লিষ্ট এক ব্যক্তি জানিয়েছেন।

টেকনাফ পৌর আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মো: ইউসুফ মনো বলেন , র‌্যাফেল ড্রয়ের ফলে স্কুল-মাদ্রাসা পড়–য়া শিক্ষার্থীরা টিফিনের টাকায় কুপন ক্রয় করছেন। এসব লাকী কুপন বিক্রি বন্ধ করা জরুরী।

উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের খারাংখালী এলাকার ব্যবসায়ী হাফেজ সাঈদ আলম জানান, সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত মাইক বাজিয়ে কুপন বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে। কিন্তু বিক্রির বিপরীতে ক্রেতা সাধারণ পুরুস্কার প্রাপ্তিতে প্রতিনিয়ত ঠকছেন।

লটারি নামের এ জুয়ার আসর কে অনুমতি প্রদান করেছে জানেন না টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রবিউল হাসান। তিনি বলেন, কুটির শিল্প মেলার অনুমতি দেয়া হয়েছে। ওখানে লটারি বা র‌্যাফেল ড্রয়ের নামে অন্য কিছু চলানোর সুযোগ নেই। কে লটারি অনুমতি দিয়েছেন তিনি জানেনও না। তিনি বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবেন বলেও জানান।

টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, শিল্প মেলায় লটারি পরিচালনার সুযোগ নেই। তবু হঠাৎ করে লটারি বিক্রির খবর পাওয়া গেছে। কারা এর অনুমতি প্রদান করেছেন তিনি জানান না। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ অবহিত করে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।
তবে কক্সবাজারের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আশরাফুল আফসার জানান, মেলার অনুমতি দেয়া হয়েছে। লটারি অনুমতি দেয়া হয়নি। বিষয়টি তিনি দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন।

॥ স্মারক লিপি প্রদান ও প্রতিবাদ সমাবেশ ॥
টেকনাফে পৌর বাস টার্মিনালে চলমান হস্ত ও কুটির শিল্প মেলার নামে অশ্লীল নাচ-গান, জুয়া ও মাদক ব্যবসা বন্ধ করতে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল বিকালে টেকনাফ বাস স্টেশনে অনুষ্টিত সমাবেশ থেকে টেকনাফ ওলামা পরিষদের নেতৃবৃন্দরা এই ঘোষণা দেন। এর আগে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক, টেকনাফের ইউএনও, পৌর মেয়র ও টেকনাফ মডেল থানাকে টেকনাফ ওলামা পরিষদের নেতৃবৃন্দরা স্মারকলিপি প্রদান করেন।

টেকনাফে পৌর বাস টার্মিনালে চলমান হস্ত ও কুটির শিল্প মেলার নামে অশ্লীল নাচ-গান, জুয়া ও মাদক ব্যবসা বন্ধ করতে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক, টেকনাফের ইউএনও, পৌর মেয়র ও টেকনাফ মডেল থানাকে টেকনাফ ওলামা পরিষদের নেতৃবৃন্দরা ২৩ এপ্রিল দুপুরে স্মারকলিপি প্রদান করেছেন। কক্সবাজার জেলা প্রশাসক বরাবরে দেয়া স্মারকলিপি গ্রহণ করেন ইউএনও’র দায়িত্বে থাকা নবাগত সহকারী কমিশণার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আবুল মনসুর। টেকনাফ পৌর মেয়রের পক্ষে গ্রহণ করেন পৌর প্যানেল মেয়র-১ মাওঃ মুজিবুর রহমান এবং টেকনাফ মডেল থানার ওসির পক্ষে ওসি তদন্ত এমএস দোহা। স্মারকলিপি গ্রহণকালে তাঁরা অনুমতিবিহীন এসব অবৈধ কর্মকান্ড চলতে দেয়া হবেনা বলে ওলামা পরিষদের নেতৃবৃন্দদের আশ^স্থ করেন।

এরপর বিকালে টেকনাফ বাস স্টেশন আবু হানিফ মার্কেট চত্বরে এক সমাবেশ অনুষ্টিত হয়। টেকনাফ ওলামা পরিষদেও সভাপতি আলহাজ¦ মাওঃ মাহবুবুর রহমান মোজাহেরীর সভাপতিত্বে সাংবাদিক মাওঃ নুর মোহাম্মদের পরিচালনায় অনুষ্টিত সমাবেশে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে টেকনাফে পৌর বাস টার্মিনালে চলমান হস্ত ও কুটির শিল্প মেলার নামে অশ্লীল নাচ-গান, জুয়া ও মাদক ব্যবসা বন্ধ করতে আল্টিমেটাম ঘোষণা করে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন তুলাতলী মাদ্রাসার প্রতিষ্টাতা পরিচালক মাওঃ মোঃ শফি, পৌর প্যানেল মেয়র-১ মাওঃ মুজিবুর রহমান, ওলামা পরিষদের সেক্রেটারী সাইফুল ইসলাম সাইফী, ইসলামাবাদ মাদ্রাসার পরিচালক মাওঃ আবদুল্লাহ, মাওঃ আশ্রফ আলী প্রমুখ। প্রশাসন আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে এসব অবৈধ কর্মকান্ড বন্ধ করতে ব্যর্থ হলে ওলামা পরিষদ তৌহিদী জনতাকে সাথে নিয়ে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন বলে হুশিয়ারী দেন। এতে যে কোন পরিস্থিতির জন্য প্রশাসন দায়ী থাকবে বলে দাবি করা হয়েছে।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2020

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!