এইমাত্র পাওয়া

x

ছাত্রদলের ১২ নেতাকে ‘বহিষ্কার’ করেছে বিএনপির

রবিবার, ২৩ জুন ২০১৯ | ৫:২৭ পূর্বাহ্ণ | 110 বার

ছাত্রদলের ১২ নেতাকে ‘বহিষ্কার’ করেছে বিএনপির
সকালে বিএনপি অফিসে সংবাদ সম্মেলন করে দাবি আদায় না পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন ছাত্রদলের এই নেতারা, রাতে তাদের বহিষ্কারের ঘোষণা দিলেন বিএনপি মহাসচিব

ছাত্রদলের কমিটি গঠনে বয়সসীমা তুলে দেওয়ার দাবিতে আন্দোলনরত ১২ জন নেতাকে বহিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি।

শনিবার রাতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তাদের প্রাথমিক সদস্যপদসহ সব পর্যায়ের পদ থেকে বহিষ্কারের কথা জানানো হয়।

এই নেতারা হলেন- ছাত্রদলের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক বাশার সিদ্দিকী, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি জহিরউদ্দিন তুহিন, ছাত্রদলের ভেঙে দেওয়া কমিটির সহ-সভাপতি এজমল হোসেন পাইলট, ইকতিয়ার কবির, জয়দেব জয়, মামুন বিল্লাহ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, বায়েজিদ আরেফিন, সহ-সাধারণ সম্পাদক দবির উদ্দিন তুষার, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আজম সৈকত, আব্দুল মালেক এবং সদস্য আজীম পাটোয়ারি।

এই নেতারা শনিবার দুপুরে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় সংবাদ সম্মেলন করে তাদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন।

এই সংবাদ সম্মেলনের দেড় ঘণ্টা আগে সকাল ১১টায় খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে নয়া পল্টন থেকে শুরু হওয়া আইনজীবীদের একটি মিছিলে রুহুল কবির রিজভী যোগ দিলে তাকে অপদস্ত করেন ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধরা। তার বিরুদ্ধে নানা শ্লোগান দেন তারা।

গত ৩ জুন ঈদের আগের দিন রাতে ছাত্র দলের কমিটি ভেঙে দেয় বিএনপি। আগামী ৪৫ দিনের মধ্যে কাউন্সিলের মাধ্যমে নতুন কমিটি গঠনের কথা বলা হয়। তাতে বলা হয়, ২০০০ সালের পর থেকে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণরাই ছাত্রদলের কমিটিতে স্থান পাবে।

এরপর বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতারা গত ১০ জুন নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেয়। কার্যালয়ের ভেতরে রিজভীকেও তারা অবরুদ্ধ করে রাখে।

সেদিন লন্ডনে থাকা তারেকের সঙ্গে কথা বলার পর বিক্ষুব্ধরা শান্ত হলেও দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত প্রতিদিন দুই ঘণ্টা অবস্থান কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে।

ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধদের আন্দোলন নিয়ে সন্ধ্যায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে দলটির স্থায়ী কমিটির বৈঠকেও আলোচনা হয়। বৈঠকের পর দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীদের আন্দোলন থেকে সরে আসার আহ্বান জানান।

সকালে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর ওপর ছাত্রদল নেতা-কর্মীদের হামলার ঘটনার নিন্দাও জানান তিনি।

এরপর রাতে সাড়ে ১১টার দিকে বিএনপির প্যাডে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষরে এই নেতাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানানো হল।

আবরারের মৃত্যু আমাদের অনেক কিছু শিখিয়ে দিয়ে গেল – ইশতিয়াক আহমেদ
দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2019

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!