এইমাত্র পাওয়া

x

পেরুকে গুঁড়িয়ে গ্রুপের সেরা ব্রাজিল

রবিবার, ২৩ জুন ২০১৯ | ৬:২৯ পূর্বাহ্ণ | 122 বার

পেরুকে গুঁড়িয়ে গ্রুপের সেরা ব্রাজিল

প্রথম দুই ম্যাচে জ্বলে উঠতে না পারা ব্রাজিল দল গ্রুপের শেষ রাউন্ডে মেলে ধরল নিজেদের। পেরুকে গোল বন্যায় ভাসিয়ে ‘এ’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হয়ে কোপা আমেরিকার কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠেছে তিতের দল।

সাও পাওলোয় শনিবার স্থানীয় সময় বিকালে ম্যাচটি ৫-০ গোলে জিতেছে প্রতিযোগিতাটির আটবারের চ্যাম্পিয়নরা। বলিভিয়াকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়ে শুরু করা ব্রাজিল গত রাউন্ডে ভেনেজুয়েলার সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছিল।

প্রথম দুই ম্যাচে সমর্থকদের দুয়ো শোনা ব্রাজিল গ্রুপের শেষ ম্যাচে বল দখলের পাশাপাশি আক্রমণেও আধিপত্য করে। শুরুর দিকে কাসেমিরোর গোলে তারা এগিয়ে যাওয়ার পর প্রথমার্ধে আরও দুই গোল করেন রবের্তো ফিরমিনো ও এভেরতন। বিরতির পর ব্যবধান বাড়ান দানি আলভেস ও উইলিয়ান।

পুরো ম্যাচে একবারই ব্রাজিল গোলরক্ষককে উল্লেখযোগ্য কোনো পরীক্ষায় পড়তে হয়। বিরতির খানিক আগে ডিফেন্ডার মিগেলের শট কর্নারের বিনিময়ে ঠেকিয়ে ভালোমতোই উতরে যান আলিসন।

আগের দিন দলের খেলার উন্নতির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ব্রাজিল কোচ। ম্যাচের শুরুতে অবশ্য তার প্রতিফলন ছিল না। তবে এলোমেলো ফুটবলের মাঝেই দ্বাদশ মিনিটে এগিয়ে যায় তারা।

মার্কিনিয়োসের কর্নারে সতীর্থের হেডে গোলমুখে বল পেয়ে হেড করেন কাসেমিরো। বল পোস্টে বাধা পেলে ফিরতি হেডে গোলটি করেন রিয়াল মাদ্রিদ মিডফিল্ডার। জাতীয় দলের হয়ে এটা তার প্রথম গোল।

সাত মিনিট পর গোলরক্ষকের হাস্যকর ভুলে দ্বিতীয় গোল হজম করে পেরু। বল ধরেই শট নেন পেদ্রো গালেসে, সামনেই থাকা ফিরমিনো পা বাড়িয়ে দিলে তার পায়ে বল লেগে গোলরক্ষকের ওপর দিয়ে গিয়ে পোস্টে লাগে। ফিরতি বল ধরে ঠাণ্ডা মাথায় গোলরক্ষককে কাটিয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন লিভারপুল ফরোয়ার্ড।

দুই গোলে এগিয়ে গিয়ে আক্রমণ বাড়ানো ব্রাজিল ৩২তম মিনিটে পায় তৃতীয় গোলের দেখা। বলিভিয়ার বিপক্ষে জোড়া গোল করা ফিলিপে কৌতিনিয়োর মাঝমাঠ থেকে উঁচু করে বাড়ানো বল ধরে একজনকে কাটিয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে নিচু শটে স্কোরলাইন ৩-০ করেন এভেরতন।

আসরে গ্রেমিওর এই ফরোয়ার্ডের গোল হলো দুটি। বলিভিয়ার বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয়ে শেষটি করেছিলেন এভেরতন।

দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণাত্মক শুরু করা ব্রাজিল ৫৩তম মিনিটে দলীয় প্রচেষ্টায় করা গোলে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়। মাঝমাঠ থেকে ডান দিক দিয়ে এগিয়ে আর্থার ও ফিরমিনোর সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়া করার ফাঁকে ডি-বক্সে ঢুকে জোরালো শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন অধিনায়ক আলভেস।

নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে এভেরতনের পাস পেয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে স্কোরলাইন ৫-০ করেন চেলসির মিডফিল্ডার উইলিয়ান।

যোগ করা সময়ে ব্যবধান আরও বাড়তে পারতো। ডি-বক্সে জেসুসকে গোলরক্ষক গালেসে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় ব্রাজিল। ম্যানচেস্টার সিটির ফরোয়ার্ডেরই নেওয়া শট গোলরক্ষক।

তিন ম্যাচে দুই জয় ও এক ড্রয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হলো পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল।

বেলো হরিজন্তে একই সময়ে শুরু হওয়া আরেক ম্যাচে বলিভিয়াকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ৫ পয়েন্ট নিয়ে ‘এ’ গ্রুপের রানার্সআপ হয়েছে ভেনেজুয়েলা।

৪ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে পেরু। তিন ম্যাচের সবকটিতে হারা বলিভিয়ার পয়েন্ট শূন্য।

আবরারের মৃত্যু আমাদের অনেক কিছু শিখিয়ে দিয়ে গেল – ইশতিয়াক আহমেদ
দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2019

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!