কক্সবাজারে স্থাপিত হচ্ছে বিদেশযাত্রীর করোনা নমুনার বুথ

সোমবার, ২০ জুলাই ২০২০ | ১:৫২ অপরাহ্ণ | 116 বার

কক্সবাজারে স্থাপিত হচ্ছে বিদেশযাত্রীর করোনা নমুনার বুথ

বাংলাদেশ থেকে আকাশপথে বিদেশযাত্রায় সরকার যাত্রীদের কোভিড-১৯ পরীক্ষার ‘নেগেটিভ’ সনদ বাধ্যতামূলক করার প্রেক্ষিতে কক্সবাজার সিভিল সার্জন কার্যালয়ে স্থাপন করা হচ্ছে ‘নমুনা সংগ্রহের’ বুথ; আগামী ২৩ জুলাইয়ের আগেই এটি চালু হবে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।
তবে বিদেশ গমনেচ্ছুক ব্যক্তিদের যাত্রার ৭২ ঘন্টার পূর্বেই সরকার নির্ধারিত ফিসহ নমুনা জমা দেয়ার বাধ্যবাধকতার তথ্য জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা: মাহবুবুর রহমান।
এদিকে আগামী ২৩ জুলাই থেকে যাত্রীদের বাধ্যতামূলক করে বিদেশযাত্রায় কোভিড-১৯ পরীক্ষার ‘নেগেটিভ’ সনদ গ্রহণের নির্দেশনা কার্যকর করা হবে জানিয়েছেন বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জনসংযোগ বিভাগের উপ-মহাব্যবস্থাপক তাহেরা খন্দকার।
প্রায় দুই মাস বন্ধ থাকার পর গত মাসের মাঝামাঝিতে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু হলে বিমানের বিশেষ ফ্লাইট ইতালিতে ফিরে যান হাজারখানেক বাংলাদেশি। তাদের মধ্যে ‘উল্লেখযোগ্য সংখ্যকের’ করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ায় বাংলাদেশ থেকে সবধরণের ফ্লাইটে নিষেধাজ্ঞা দেয় ইতালি সরকার।
এরপর গত ৯ জুলাই কাতার এয়ারওয়েজের দু’টি ফ্লাইটে ইতালিতে যাওয়া ১৬৫ বাংলাদেশিকে সেদেশের বিমানবন্ধরে নামতে না দিয়ে ওই উড়োজাহাজেই দেশে ফেরত পাঠানো হয়।
ওই ঘটনার পর গত ১২ জুলাই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল, বিদেশে যেতে চাইলে বাংলাদেশের যে কোন নাগরিককে ‘করোনা নেগেটিভ’ সনদ নিয়ে যেতে হবে।
এই প্রেক্ষাপটে বিদেশযাত্রায় যথাযথভাবে করোনাভাইরাস পরীক্ষা নিশ্চিতের জন্য সরকার উদ্যোগ নেয়। এ বিষয়ে বেশ কয়েকটি নির্দেশনা দিয়েছে রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ।
এগুলো হল- ১. যাত্রার ৭২ ঘন্টা পূর্বে কোন নমুনা সংগ্রহ করা হবে না। যাত্রার ২৪ ঘন্টার পূর্বে রিপোর্ট ডেলিভারি গ্রহণের ব্যবস্থা করতে হবে। ২. নমুনা প্রদানের সময় পাসপোর্টসহ যাত্রীদের বিমান টিকেট ও পাসপোর্ট উপস্থাপন এবং নির্ধারিত ফি পরিশোধ করতে হবে। ৩. কোভিড-১৯ পরীক্ষার নিমিত্তে নির্দিষ্টকৃত পরীক্ষাগার যে জেলায় সিভিল সার্জন অফিসে স্থাপিত পৃথক বুথে তাদের নমুনা প্রদান করবেন। ৪. নমুনা প্রদানের পর থেকে যাত্রার সময় পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি আবশ্যিকভাবে আইসোলেশনে থাকবেন। ৫. বিদেশ যাত্রীদের কোভিড-১৯ পরীক্ষা সনদ প্রাপ্তির জন্য ল্যাবে গিয়ে নমুনা প্রদানের ক্ষেত্রে ৩ হাজার ৫০০ টাকা এবং বাড়ী থেকে নমমুনা সংগ্রহে ৪ হাজার ৫০০ টাকা ফি প্রদান করতে হবে।
বিদেশ গমনেচ্ছুদের কোভিড-১৯ পরীক্ষার জন্য ১৬ টি সরকারি হাসপাতাল ও প্রতিষ্ঠান নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার। এগুলোর মধ্যে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবও একটি।
এ নিয়ে কক্সবাজারের সিভিল সার্জন ডা: মাহবুবুর রহমান বলেন, বিদেশ গমনেচ্ছুদের জন্য সরকার কোভিড-১৯ পরীক্ষার ‘নেগেটিভ ফলাফলের’ সনদ গ্রহণ বাধ্যতামূলক করার প্রেক্ষিতে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে একটি নমুনা সংগ্রহ বুথ স্থাপন করা হবে। আগামী ২৩ জুলাইয়ের আগে এটির প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।
“ তবে বিদেশ গমনেচ্ছুকদের সিভিল সার্জন কার্যালয়ে যোগাযোগ করে সংশ্লিষ্ট ফরম পূরণ করে নমুনা জমা দিতে হবে। এছাড়া নমুনা জমা দেয়ার সময় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির পাসপোর্টসহ যাত্রীদের বিমান টিকেট ও পাসপোর্ট উপস্থাপন এবং নির্ধারিত ফি পরিশোধ করতে হবে। ”
তবে এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের পরিপত্র এখনো সিভিল সার্জন কার্যালয়ে না পৌঁছায় বিস্তারিত পরবর্তীতে জানানো হবে জানান সিভিল সার্জন।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2020

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!