এইমাত্র পাওয়া

x

আর সুযোগ পাচ্ছে না ইয়াবা কারবারিরা

ইয়াবা ও জলদূস্যদের দ্বিতীয় দফার আত্মসমর্পণ শীঘ্রই

সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯ | ৫:৪৩ অপরাহ্ণ | 257 বার

ইয়াবা ও জলদূস্যদের দ্বিতীয় দফার আত্মসমর্পণ শীঘ্রই

ইয়াবা ব্যবসায়ি ও জলদূস্যদের আত্মসমর্পণের আর কোন সুযোগ থাকছে না; সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্যটি জানা গেছে।

তবে সংশ্লিষ্ট সূত্রের খবর, এ পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতে আসা ইয়াবা ব্যবসায়ি এবং জলদূস্যরা দ্বিতীয় দফার আত্মসমর্পণের সুযোগ পাবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তা ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে আগামী ঈদুল আযহার পর তাদের আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হবে।

এক্ষেত্রে ‘দ্বিতীয় দফা আত্মসমর্পণ’ অনুষ্ঠানের আগের দিন পর্যন্ত নতুন করে ইচ্ছা প্রকাশকারি জলদূস্যদের আত্মসমর্পণের সুযোগ থাকলেও পুলিশের হেফাজতে থাকারা ছাড়া আর কোন ইয়াবা ব্যবসায়ির জন্য তা নেই বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো।

উল্লেখ্য, গত ১৬ ফেব্রুয়ারী টেকনাফ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উপস্থিতিতে চিহ্নিত ও তালিকাভূক্ত ১০২ জন ইয়াবা ব্যবসায়ি আত্মসমর্পণ করেছিল।

গতবছর (২০১৮) সালের ৪ মে থেকে সরকারের নির্দেশনায় আইন শৃংখলা বাহিনী সারাদেশে ‘মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান’ শুরু করে। একই সঙ্গে কক্সবাজারেও শুরু হয় মাদক বিরোধী সাড়াশী অভিযান। পুলিশ ও র‌্যাবসহ বিভিন্ন আইন শৃংখলা বাহিনীর অভিযানে এ পর্যন্ত (২১ জুলাই) কক্সবাজারে কথিত বন্দুকযুদ্ধ এবং মাদক ব্যবসায়িদের মধ্যে দ্বন্ধে নিহত হয়েছে ১৩৫ জন।

আত্মসমর্পণ প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত থাকা সংশ্লিষ্টরাসহ প্রশাসনের দায়িত্বশীল একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, আন্তরিক প্রচেষ্টার পরও ইয়াবা ব্যবসায়িদের কাছ থেকে আত্মসমপর্ণের ব্যাপারে আশানুরূপ সাড়া পায়নি সরকার। এ নিয়ে সরকারের উর্ধ্বতন মহলে কয়েক দফা আলাপ আলোচনার পর আর কোন ইয়াবা ব্যবসায়িদের আত্মসমর্পণের সুযোগ না দেয়ার চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সূত্রের বরাতে জানা যায়, ইয়াবা ব্যবসায়ি ও জলদূস্যদের আত্মসমর্পণের জন্য আর কোন সুযোগ দেয়া হবে না। তবে পুলিশ হেফাজতে যারা রয়েছে তারা দ্বিতীয় দফায় আত্মসমর্পণের সুযোগ পাবে। এক্ষেত্রে নতুন করে ইচ্ছা প্রকাশকারি জলদূস্যদের আত্মসমর্পণের সুযোগ থাকলেও ইয়াবা ব্যবসায়িদের জন্য তা নেই।

সূত্রটি নিশ্চিত করেছে, সেক্ষেত্রে জলদূস্যরা ‘দ্বিতীয় দফা আত্মসমর্পণ’ অনুষ্ঠানের আগেরদিন পর্যন্ত আত্মসমর্পণের সুযোগ পেলেও হেফাজতে আসারা ছাড়া নতুন করে আর কোন ইয়াবা ব্যবসায়ির তা নেই। আগামী ঈদুল আযহার পর পরই দ্বিতীয় দফার আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হবে। এতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তা ব্যক্তিরা উপস্থিত থাকবেন।

এদিকে ইয়াবা ব্যবসায়ি ও জলদূস্যদের দ্বিতীয় দফা আত্মসমর্পণের ব্যাপারে কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসাইন বলেন, বিষয়টি নিয়ে সরকারের উধ্বর্তন মহলে আলাপ আলোচনা চলছে। যথাসম্ভব শীঘ্রই দ্বিতীয় দফার আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হবে।

দ্বিতীয় দফা আত্মসমর্পণ অনূষ্ঠানটি আগামী ঈদুল আযহার পর অনুষ্ঠিত হবার সম্ভাবনা রয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, আর কোন ইয়াবা ব্যবসায়ি বা জলদূস্য নতুন করে আত্মসমর্পণ করতে পারবে কি, পারবে সেটি সরকারের উর্ধ্বতন মহলের সিদ্ধান্তের ব্যাপার। তবে উধ্বর্তন মহলে এ ধরণের বিষয় নিয়ে আলাপ আলোচনা চলছে।

তবে এখনো পর্যন্ত পুলিশের কাছে সেই ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা আসেনি বলে জানান ইকবাল।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2019

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!