আবরারের মৃত্যু আমাদের অনেক কিছু শিখিয়ে দিয়ে গেল – ইশতিয়াক আহমেদ

বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর ২০১৯ | ৭:৫৩ অপরাহ্ণ | 622 বার

আবরারের মৃত্যু আমাদের অনেক কিছু শিখিয়ে দিয়ে গেল – ইশতিয়াক আহমেদ

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকান্ডের বিষয় নিয়ে মন্তব্য প্রকাশ করেছেন কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইশতিয়াক আহমেদ জয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ইশতিয়াকের নিজের ফেইসবুক পোস্টে লিখেছেন- “ একটি মৃত্যু আমাদের চোখের সামনে অনেক কিছু স্পষ্ট করে দিয়েছে। একটি মৃত্যু নিয়ে কতো জল ঘোলা করা যায় কতোভাবে রাজনৈতিক ফায়দা লুটা যায় তা দেখতে পারছি। যে ছেলেটা মারা গেল সে আর ফিরে আসবে না। তবে এই ছেলেটার মৃত্যু আমাদের অনেক কিছু শিখিয়ে দিয়ে গেল।

ছাত্রলীগ সভাপতি ইশতিয়াক আহমেদ জয়ের ফেইসবুকে দেয়া স্ট্যাটাসটি পাঠকের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো- বুয়েটের অনাকাক্সিক্ষত ঘটনায় একজন ছাত্রলীগ কর্মী হিসেবে আমি লজ্জিত এবং খুব গভীরভাবে ব্যতীত। যে সংগঠন নিয়ে আমার সীমাহীন গর্ব সে সংগঠনের সাথে জড়িত কেউ অপরাধ করলে আমার লজ্জা হওয়াই উচিৎ। একইভাবে আমার সংগঠনের কেউ ভাল কিছু করলে আমি গর্বিত হই এবং অহংকার বোধ করি…

এবার আসল কথায় আসি..

একটি মৃত্যু আমাদের চোখের সামনে অনেক কিছু স্পষ্ট করে দিয়েছে। একটি মৃত্যু নিয়ে কতো জল ঘোলা করা যায় কতোভাবে রাজনৈতিক ফায়দা লুটা যায় তা দেখতে পারছি।
যে ছেলেটা মারা গেল সে আর ফিরে আসবে না। তবে এই ছেলেটার মৃত্যু আমাদের অনেক কিছু শিখিয়ে দিয়ে গেল।

অপরাধীর কোন দল নাই এটা বলবো না..

অপরাধীরও দল থাকতে পারে। কিন্তু অপরাধীর যে দলের সেই দল যদি ব্যক্তির অপরাধ চিহ্নিত করে, এবং ততক্ষনাৎ অপরাধের বিপক্ষে গিয়ে অপরাধীর শাস্তি নিশ্চিত করার জন্য কার্যকর যা যা ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন তা গ্রহণ করে তবে তা দ্বারা স্পষ্ট প্রমাণ হয় দল অপরাধকে প্রশ্রয় দিচ্ছে না।

আর যদি অপরাধীর অপরাধের পরেও দল যদি অপরাধের বিরুদ্ধে কার্যকর কোন ব্যবস্থা না নেয় তাহলে প্রমাণ হয়,দল অপরাধকে সমর্থন দিচ্ছে।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ অপরাধীদের বিরুদ্ধে কি কি ব্যবস্থা নিয়েছে তা আপনারা সকলেই জানেন।

তবে একটা ব্যাপার আমাদের সবার মাথায় রাখা প্রয়োজন ..

এইরকম অপরাধ যাতে সংগঠিত আর কখনো না হয়। দলের যেকোনো পর্যায়ের কোন সদস্যর দ্বারা তা নিশ্চিত করার দায়বদ্ধতা দলের।

বারবার অপরাধ হবে আর অপরাধের পরে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে তা মোটেও কাম্য না। যাকে তাকে ধরে এনে নেতা বানানোর প্রক্রিয়া চললে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটতে পারে। আমি আমার স্বল্প মেধায় এটুকুই বুঝি।

আবরার হত্যার বিচার চাই…

আর কাউকে যেনো আবরারের মতো প্রাণ দিতে না হয়।

লেখক
ইশতিয়াক আহমেদ জয়
সভাপতি
কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগ

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2019

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!