পানখালী সড়কের মরণফাঁদ

অবশেষে এলাকার তরুণরাই এগিয়ে আসল

মঙ্গলবার, ২৮ জুলাই ২০২০ | ১:০৩ অপরাহ্ণ | 39 বার

অবশেষে এলাকার তরুণরাই এগিয়ে আসল

সীমান্ত উপজেলা টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের জনগুরুত্বপ‚র্ণ পানখালী সড়কের নাজুক অবস্থা দীর্ঘদিনের। “কে শুনে কার কথা” বলা যায় সড়কটির পুননির্মাণ কারো যেন দায় নেই। আর এমনই বেহাল আর ভাঙ্গাচোরা সড়ক দিয়ে চলছে প্রতিনিয়ত হাজারো মানুষ।
তথ্যানুসন্ধানে দেখা যায়, হ্নীলা বাস স্টেশনস্থ প্রধান সড়কের সাথে সংযুক্ত পানখালী সড়কটির প্রায় অংশে দেখা দিয়েছে ছোট-বড় গর্ত আর ভাঙ্গনের। তদুপরি বৃষ্টির পানি এ চরম দ‚রবস্থাকে পরিণত করেছে এক অনাকাংখিত মরণফাঁদে। জনপ্রতিনিধি কিংবা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের চরম অবহেলা সড়কটির এমন ঝুকিঁপ‚র্ণ ও মরণদশা বলছেন, ভ‚ক্তভোগী স্থানীয়রা।
এদিকে পানখালী সড়কে প্রায় অংশে এমন ঝুঁকি দেখা দিলেও নাফমেরিট মাল্টিমিডিয়া স্কুল সংলগ্ন একটি অংশে বড় ধরনের গর্তের সৃষ্টি হয়েছে, ফলে যেকোন সময় ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের দ‚র্ঘটনা। এমন আশংকার মাঝে এলাকার কিছু সমাজ সেবক তরুণ এগিয়ে এসেছে সম্ভাব্য এ দ‚র্ঘটনা প্রবণ গর্তে মাটি আর ইট দিয়ে ভরাট করতে। সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম এইচকে আনোয়ারের বড় ছেলে জাহিদ হোসেন সম্রাট, মোহাম্মদ শাকের, জামাল উদ্দিন সহ সেচ্ছায় উদ্যোগী কতিপয় তরুণ নিজেদের অর্থায়নে এ মহতী উদ্যোগে এগিয়ে আসায় সাধুবাদ জানিয়েছেন এলাকার সাধারণ মানুষ।
সচেতন মহলের মতে, গ্রামীণ সড়ক সংস্কারে সরকার আন্তরিক হলেও কি কারণে পানখালীর জরাজীর্ণ এ সড়কটি অযতেœ অবহেলায় এখনো পড়ে আছে? এমনটি প্রশ্ন দেখা দিয়েছে স্থানীয়দের মাঝে।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2020

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!