অবশেষে উপজেলা থেকে ত্রাণ এলো তুলাতলী গ্রামে

শুক্রবার, ২৪ এপ্রিল ২০২০ | ৭:০২ অপরাহ্ণ | 90 বার

অবশেষে উপজেলা থেকে ত্রাণ এলো তুলাতলী গ্রামে

দিনমজুর, কৃষক ও দৈনিক আয়ের উপর নির্ভরশীল পুরো গ্রামের মানুষ। প্রতিদিন কাজ করলে পরিবার চালাতে পারেন। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউনের ফলে ছন্দপতন ঘটেছে গ্রামটির মানুষের জীবনযাত্রায়।

স্বাধীনতা পরবর্তী সময় থেকে গ্রামটি উন্নয়ন ও সরকারী সুযোগ-সুবিধা বঞ্চিত হলেও এবারই প্রথম উপজেলা প্রশাসন গ্রামটির মানুষের অসহায়ত্বের খবর সরাসরি জানলেন। আর তাই কর্মহীন প্রায় অর্ধশত মানুষ শুক্রবার (২৪এপ্রিল) ত্রাণ সহায়তা পেয়েছেন।

জানা গেছে, রামু উপজেলার গর্জনিয়া বাজারে যাওয়ার পথে কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের আওতাধীন ৫নং ওয়ার্ডের তুলাতলী গ্রাম। প্রধান সড়ক লাগোয়া হলেও স্বাধীনতা পরবর্তী সময় থেকে গ্রামটি নানাভাবে উন্নয়ন ও সরকারী সুযোগ সুবিধা বঞ্চিত। পাহাড়ের টিলায় টিলায় বসবাসরত এখানকার মানুষ দিনমজুর, রিক্সা, ভ্যান চালক, হোটেল শ্রমিকসহ দৈনিক আয়ের উপর নির্ভরশীল। কর্মহীন থাকায় আয়রোজগার বন্ধ তাদের। শুক্রবার উপজেলা সদর থেকে ত্রাণের প্যাকেট এসেছে জেনে আনন্দ দেখা দেয় হতদরিদ্র এসব মানুষের মাঝে।

এসময় কথা হয় ওই গ্রামের বাসিন্দা নুর জাহান, আনোয়ারা বেগমের সাথে। তারা দু’জনই স্বামী পরিত্যাক্তা। বর্তমানে মানুষের বাড়িতে কাজ করে জীবিনা নির্বাহ করেন। অন্যদিকে বেদার মিয়া, আবুল শামা রিক্সা চালিয়ে পরিবার চালান। লকডাউনের কারনে গত প্রায় একমাস কর্মহীন হয়ে বাড়িতে অবস্থান করছেন। তুলাতলী গ্রামের এসব বাসিন্দা কয়েকদিনের রসদ পেয়ে উপজেলা প্রশাসনসহ সহায়তাকারীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

গ্রামের অপর বাসিন্দা মোজাহের, শাহা আলম, আবদু সালাম, ফাতেমা বেগমসহ অসংখ্যা বাসিন্দা জানান- ‘এবারই প্রথম উপজেলা সদর থেকে তাদের জন্য ত্রাণ এলো’। অথচ তুলাতলী গ্রাম হয়ে প্রশাসনের কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের নিয়মিত যাতায়ত। এসময় তারা ত্রাণ পেয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন এবং ত্রাণ সহায়তার কাজে সম্পৃক্ত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

এসময় এক পাহাড় থেকে অন্য পাহাড়ের টিলায় বসবাসরত হতদরিদ্র মানুষের ঘরে ঘরে ত্রাণের প্যাকেট বিতরণ করেন জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার আওরঙ্গজেব টিপু, আবু হানিফ, মৈত্রী’০২ এর সভাপতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলম, সাইফুল ইসলাম, সাংবাদিক সোয়েব সাঈদ, আবুল বাশার নয়ন প্রমুখ।

এদিকে ত্রাণ বিতরণ প্রসঙ্গে মুঠোফোনে রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রনয় চাকমা বলেন- সরকারী নির্দেশে মানুষের ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌছানোর জন্য প্রশাসন সর্বাত্মক কাজ করছে। খেটে খাওয়া কর্মহীন মানুষের সহায়তার জন্য সরকারের পাশাপাশি এলাকার বিত্তবানদের অবদান রাখতে হবে। এসময় তিনি এলাকার মানুষকে সরকারী নির্দেশনা মেনে ঘরে অবস্থান করে পরিবার ও দেশকে রক্ষার আহ্বান জানান।

দৈনিক দৈনন্দিন এ প্রকাশিত কোন ছবি,সংবাদ,তথ্য,অডিও,ভিডিও কপিরাইট আইনে অনুমতি ব্যতিরেখে ব্যবহার করা যাবে না ।

Copyright @ 2020

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!